top of page

'রপ্তানির উন্নতি এবং ব্যবসায়িক সুযোগ'- এই মর্মে এমএসএমই-র জাতীয় সেমিনার


কলকাতা, ২মার্চ: কেন্দ্রের এমএসএমই মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার ভারতীয় জাদুঘরে এমএসএমই রপ্তানি, প্রচার ও ব্যবসায়িক সুযোগ-সুবিধা শীর্ষক একটি একদিনের জাতীয় সেমিনারের আয়োজন করা হয়।




এই সেমিনারের মূল লক্ষ্য হল নির্দিষ্ট সক্ষমতা বৃদ্ধির পদ্ধতির সঙ্গে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে একটি নতুন উদ্দীপনা স্থাপন করা। ডিজিটাল প্রযুক্তির অগ্রগতি এবং রপ্তানির সুযোগের সঙ্গে বাজার দিন দিন বড় থেকে আরও বড় হচ্ছে।


ভারতীয় উদ্যোক্তারা যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। নতুন নতুন ধারণা জন্মেছে। উদ্যোক্তাদের সুবিধার্থে নতুন সাপোর্ট সিস্টেম তৈরি করা হচ্ছে। এই সেমিনারের লক্ষ্য হল উদ্যোক্তাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ রপ্তানি সম্ভাবনা সম্পর্কে প্রচার এবং ব্যবসার বৃদ্ধি ও তার অন্বেষণের মাধ্যমে বিশ্বের কাছে পৌঁছানো।


এই জাতীয় সেমিনারের উদ্বোধন করেন: শ্রী ডি মিত্র, আই.ই.ডি.এস,জয়েন্ট ডিরেক্টর ও এইচওও, এমএসএমই- ডিএফও, কলকাতা; ড. ভি. শিবকুমার, পরিচালক, খাদি ও গ্রামীণ শিল্প কমিশন (কেভিআইসি), এম/ও এমএসএমই, কলকাতা; শ্রীমতি দেবদত্ত নন্দওয়ানি, আঞ্চলিক প্রধান, ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান এক্সপোর্ট অর্গানাইজেশন (এফআইইও), পূর্বাঞ্চল, কলকাতা এবং পার্থ চৌধুরী, যুগ্ম পরিচালক, এমএসএমই অধিদপ্তর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার কলকাতা।


বাংলার জন্য এমএসএমই- র একচেটিয়া বাজারের কথা তুলে ধরতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন। সমগ্র অনুষ্ঠানটি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন শ্রী ডি মিত্র, আই.ই.ডি.এস,জয়েন্ট ডিরেক্টর ও এইচওও, এমএসএমই- ডিএফও, কলকাতা। তিনি আরও জানান যে প্রায় ২০০টি এমএসএমই প্রতিষ্ঠান এই সেমিনারে অংশ নিয়েছিল। তাঁর মতামত শেয়ার করে তিনি বলেন, "ভারত সরকার ক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগে(MSMEs) রপ্তানি বাড়ানোর জন্য বেশ কিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এমএসএমই মন্ত্রক সারা দেশে বিভিন্ন রপ্তানি সুবিধা কেন্দ্র (EFCs) প্রতিষ্ঠা করেছে। এমএসএমই-গুলিকে তাদের পণ্য ও পরিষেবা রপ্তানির জন্য প্রয়োজনীয় পরামর্শদান এবং নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে বিভিন্ন এন্টারপ্রাইজ ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (EDCs) সেটআপ করা হয়েছে৷ মন্ত্রণালয় তার আন্তর্জাতিক অবস্থান বাস্তবায়নও করছে৷


বিদেশে আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী, বাণিজ্য মেলা, ক্রেতা-বিক্রেতা সম্মেলন ইত্যাদিতে এমএসএমই-র পরিদর্শন ও অংশগ্রহণের সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে পণ্য ও পরিষেবাগুলির বাজারজাতকরণের সুবিধা বৃদ্ধির জন্য সহযোগিতার পরিকল্পনা করা এছাড়াও ভারতে আন্তর্জাতিক সম্মেলন, সেমিনার এবং কর্মশালা আয়োজন করা। ব্যবসার সুযোগ অন্বেষণ করা।


দেশের এমএসএমই মন্ত্রক বর্তমান ডিজিটাল মার্কেটিং এর ওপর বিশেষ জোর দিচ্ছে। ই-মার্কেট প্লেস (GeM), পাবলিক প্রকিউরমেন্ট নীতির সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়ার জন্য এবং রপ্তানি উন্নতির ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। ক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগের উন্নয়নের জন্য মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন বিষয় ও কার্যক্রমের তিনটি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশন ছিল। রেজিস্ট্রেশন এবং জেডইডি রেজিস্ট্রেশনের জন্য একটি বিশেষ ক্যাম্প এন্টারপ্রাইজগুলিকে সহায়তা করেছে।



Edited By

Swarnali Goswami

Comentarios

Obtuvo 0 de 5 estrellas.
Aún no hay calificaciones

Agrega una calificación

Top Stories

bottom of page