top of page

কংগ্রেস ছাড়লেন কৌস্তভ বাগচি, শুরু জল্পনা




কলকাতা, ২৮ ফেব্রুয়ারি: কংগ্রেস ছাড়লেন জনপ্রিয় নেতা কৌস্তভ বাগচি৷ ইতিমধ্যেই তিনি কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট মল্লিকার্জুন খাড়্গে, রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী ও কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক গুলাম আহমেদ মীরকে চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছেন৷ কিছুদিন থেকেই তাঁর দল ছাড়ার জল্পনা বাড়তে শুরু করেছিল। এরই মাঝে একাধিকবার কংগ্রেসকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন তিনি। কয়েকদিন আগে রাহুল গান্ধীকেও 'ন্যায় যাত্রা' নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন কৌস্তভ।

কৌস্তব বাগচির অভিযোগ, কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব কখনই প্রদেশ কংগ্রেসের উপস্থিতির কথা স্বীকার করছে না৷ বরং তৃণমূল কংগ্রেসকেই একটি অংশ হিসাবে কল্পনা করছে, যেটি ঠিক নয়৷ এর আগে ইন্ডিয়া জোটে কংগ্রেস এবং তৃণমূল একমঞ্চে আসার বিষয়টিকে মেনে নিতে পারেননি কৌস্তভ। এছাড়া গতবছর ১৮ অগস্ট ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাননি তিনি। অভিযোগ, ওই দিন সমর্থকদের নিয়ে গিয়ে তিনি মহাজাতি সদনে অশান্তি করেছিলেন। সেদিনই তাঁকে দলীয় মুখপাত্রের তালিকা থেকে বাদ দেয় কংগ্রেস। তার পরেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উৎখাত না করা পর্যন্ত কৌস্তভ ন্যাড়া থাকার প্রতিজ্ঞা করেছেন।





সন্দেশখালির ঘটনা নিয়েও তাঁর অভিযোগ রয়েছে। তিনি জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে সঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিলেও কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব আশ্চর্যজনক ভাবে নিশ্চুপ থেকেছে৷ যার ফলে দলের কর্মীদের মাথা নিচু হয়েছে৷






এদিকে গ্রুপ ডি চাকরিপ্রার্থীদের মিছিলে কৌস্তভ এবং শুভেন্দুকে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল গতবছর সেপ্টেম্বরে। সেই সময় কৌস্তভকে যথেষ্ট প্রশংসা করেছিলেন শুভেন্দু। বিজেপি নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির দুর্গাপুজোয় কৌস্তভ বাগচীর সঙ্গে ফের দেখা গিয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীকে। এই আবহে কৌস্তভ এবার বিজেপির দিকে এগোন কি না, সেদিকেই নজর রয়েছে সবার।


Commenti

Valutazione 0 stelle su 5.
Non ci sono ancora valutazioni

Aggiungi una valutazione

Top Stories

bottom of page