top of page

ইন্দোনেশিয়ার মাউন্ট মারাপি আগ্নেয়গিরিতে অগ্নুৎপাতের ফলে ১১ জন মৃত, নিখোঁজ ১২


৪ ডিসেম্বর: রবিবার থেকে ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাত শুরু হয়েছে পশ্চিম ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপের মাউন্ট মারাপি আগ্নেয়গিরিতে। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১১ জন পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও নিখোঁজ রয়েছেন ১২ জন। ভয়াবহ অগ্নুৎপাতের কারণে ইতিমধ্যে আশেপাশের এলাকা খালি করে দিয়েছে প্রশাসন।

একটি সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে, শনিবার থেকে পাহাড়ে মোট ৭৫ জন পর্বতারোহী ছিলেন। অগ্ন্যুৎপাতের পরেই ৪৯ জন পর্বতারোহী অক্ষত অবস্থায় নিচে নেমে আসেন। এরপর খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসন সেখানে উদ্ধার কাজে নেমে পড়ে। রাতভর উদ্ধার কাজ চালিয়ে মৃত এবং জীবিতদের উদ্ধার করা হয়। সোমবার ১৪ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার মধ্যে ৩ জন জীবিত অবস্থায় এবং ১১ জনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ ১২ জনের খোঁজ চলছে। উদ্ধার হওয়া পর্বতারোহীদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। গরম লাভার সংস্পর্শে আসার কারণে হাসপাতালে তাদের চিকিৎসা চলছে বলে জানিয়েছেন পাডাং সার্চ অ্যান্ড রেসকিউ এজেন্সির প্রধান আবদুল মালিক।

মধ্য জাভা এবং জোগিয়াকার্তা প্রদেশের সীমান্তে অবস্থিত এটি ইন্দোনেশিয়ার সবচেয়ে সক্রিয় আগ্নেয়গিরি হিসাবে বিবেচিত হয়। এটি একটি সক্রিয় আগ্নেয়গিরি। অগ্ন্যুৎপাতের কারণে এখানে মাঝেমধ্যেই ভূমিকম্প হয়ে থাকে। উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৪ ডিসেম্বর সুমেরু পর্বতে প্রবল অগ্ন্যুৎপাত শুরু হয়েছিল। তাতে ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল প্রায় ৫ হাজার বাড়ি।

Top Stories

bottom of page