top of page

সন্দেশখালিতে রাজ্যপাল, এই ইস্যুতে বিধানসভায় সাসপেন্ড শুভেন্দু সহ ৬ বিজেপি বিধায়ক




কলকাতা, ১২ ফেব্রুয়ারি: রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস যেতেই তাঁর কাছে সন্দেশখালির মহিলারা দাবি তুললেন, শেখ শাহজাহান ও তাঁর শাগরেদ শিবপ্রসাদ হাজরাকে দ্রুত গ্রেফতার করতে হবে। নইলে ভবিষ্যতে অত্যাচারের মাত্রা আরও বাড়বে এমনটাই মনে করছেন তাঁরা। সন্দেশখালির মহিলাদের বক্তব্য শোনার পর কড়া পদক্ষেপের আশ্বাসও দিয়েছেন রাজ্যপাল। উল্লেখ্য, চিফ ভিজিলেন্স কমিশনারের সঙ্গেও বৈঠক করেছেন রাজ্যপাল।

সন্দেশখালিকাণ্ড নিয়ে রাজ্য জুড়ে শোরগোল শুরু হতেই কেরল সফর কাটছাঁট করে সোমবার কলকাতায় ফিরে সন্দেশখালি গিয়েছেন বোস। গত ৫ জানুয়ারি ইডি আধিকারিকদের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছিল সন্দেশখালিতে। সেই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহান। তাঁর বাড়িতেই তল্লাশি অভিযানে গিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। ঘটনার পর থেকেই পলাতক শাহজাহান। মাসখানেক পর সম্প্রতি আবার উত্তপ্ত হয়েছে সন্দেশখালি। দফায় দফায় সেখানে অশান্তি, অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। সন্দেশখালিকাণ্ডে নাম জড়ানোর পরেই উত্তমকে সাসপেন্ড করে শাসকদল। এর পরেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। এ ছাড়াও গ্রেফতার করা হয়েছে বিজেপি নেতা বিকাশ সিংহ ও সন্দেশখালির প্রাক্তন সিপিএম বিধায়ক নিরাপদ সর্দারকে।




সোমবার রাজ্যপালের পাশাপাশি সন্দেশখালি গিয়েছেন রাজ্য মহিলা কমিশনের প্রতিনিধিরা। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বের বিজেপি বিধায়করায় সেখানকার উদ্দেশ্যে রওনা হলে পথে তাঁদের আটকে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

সন্দেশখালি ইস্যুতে আজ সোমবার উত্তাল হয়ে উঠল বিধানসভা। সোমবার শুরু থেকেই হই হট্টগোলে উত্তপ্ত ছিল সভার অধিবেশন।প্রথমে স্বরাষ্ট্র সফরের প্রশ্নোত্তর পর্ব কেন হচ্ছে না সেই নিয়ে তালিকা বহির্ভূত প্রশ্ন করেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। প্রশ্ন শুনলেও তা লিপিবদ্ধ রাখতে বারণ করেন স্পিকার। এরপর বিজেপি বিধায়করা স্লোগান দিতে দিতে কাগজ ছিঁড়তে থাকেন। শেষে চেয়ার ছেড়ে মেঝেতে বসে পড়েন তাঁরা। শুভেন্দু অধিকারী, অগ্নিমিত্রা পাল, তাপসী মণ্ডল, শকর ঘোষ, বঙ্কিম ঘোষ এবং মিহির গোস্বামীকে অবশিষ্ট অধিবেশনের জন্যে সাসপেন্ড করে দেন স্পিকার। ৩৪৭ ধারায় সাসপেন্ড করা হয় শুভেন্দু-সহ ৬ বিধায়ককে।

পাশাপাশি সন্দেশখালি নিয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাওড়ার ডুমুরজলা হেলিপ্যাড গ্রাউন্ডে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্য সরকার এ নিয়ে যথাযথ পদক্ষেপ করছে। রাজ্য মহিলা কমিশনকেও সেখানে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারও করেছে পুলিশ।

Top Stories

bottom of page