top of page

লোকসভার দর্শকাসন থেকে ঝাঁপ দেওয়ার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৬ জন গ্রেফতার


১৪ ডিসেম্বর: গতকাল সংসদ ভবনে লোকসভার দর্শকাসন থেকে ঝাঁপ দেওয়ার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৬জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতদের বিরুদ্ধে ইউএপিএ (আনলফুল অ্যাক্টিভিটিস প্রিভেনশন অ্যাক্ট) আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। কর্তব্যের গাফিলতির অভিযোগে আট কর্মীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত কর্মীরা হচ্ছেন রামপাল, অরবিন্দ, বীর দাস, গণেশ, অনিল, প্রদীপ, ভিমিত এবং নরেন্দ্র।দিল্লি পুলিশ সংসদের নিরাপত্তা লঙ্ঘনের ঘটনায় কঠোর বেআইনি কার্যকলাপ (প্রতিরোধ) আইনের অধীনে একটি মামলা দায়ের করেছে।

এদিকে সংসদের নিরাপত্তা লঙ্ঘন কাণ্ডে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ, প্রহ্লাদ জোশী, পীযূষ গোয়েল, জেপি নাড্ডা। বুধবার নিরাপত্তা লঙ্ঘনের বিষয়ে ভবিষ্যতে পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করার জন্য একটি বৈঠক করবে বিরোধী ইন্ডিয়া জোট। বিরোধী নেতা কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের বাসভবনের দেখা করবেন।

উল্লেখ্য, বুধবার লোকসভায় অধিবেশন চলাকালীন দুই ব্যক্তি দর্শক গ্যালারি থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে হাউসের মধ্যে। তাদের হাতে ক্যানিস্টার ছিল। ক্যানিস্টার থেকে হলুদ গ্য়াস ছোঁড়ে তারা। বেশ কিছু স্লোগানও দেয় সংসদের মধ্য়ে। সেই সময় লোকসভার মধ্যে বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়। আগন্তুকদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন সাংসদরাও।

সংসদের হামলায় অভিযুক্ত ললিত ঝায়ের সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনার হালিশহরের ছেলে নীলাক্ষী আইচের যোগ পাওয়া গেছে। তবে ওই পড়ুয়ার দাবি, তিনি যে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন চালান, ললিত সেই সংগঠনের সদস্য হলেও সংসদ হামলায় অভিযুক্তদের বিষয়ে তেমন কিছু জানেন না। পুলিশ সূত্রে খবর, সংসদ ভবনে হামলাকাণ্ডে অভিযুক্ত হিসেবে ললিত ঝা নামে যে ব্যক্তির নাম উঠে এসেছে, সেই ব্যক্তি বুধবারের ঘটনার পরই হোয়্যাটসঅ্যাপে নীলাক্ষীকে সেই ভিডিয়োও পাঠিয়েছিল।


Top Stories

bottom of page