top of page

'লাইমলাইট ল্যাব গ্রোন ডায়মন্ডস লিমিটেড' মার্কিন ডলার ১ মিলিয়ন বিনিয়োগ সুরক্ষিত করে, ব্র্যান্ড এবং স্টোর সম্প্রসারণ পরিকল্পনার উপর গুরুত্ব দিচ্ছে




৩ এপ্রিল, ২০২৪: লাইমলাইট ল্যাব গ্রোন ডায়মন্ডস লিমিটেড, ভারতের সিভিডি ডায়মন্ড জুয়েলারি বিপ্লবের পিছনে অগ্রগামী শক্তি, কোম্পানির মূল্যায়ন ভারতীয় মুদ্রায় ৩৪০ কোটিতে নিয়ে US$1 মিলিয়নের কৌশলগত বিনিয়োগের সাথে একটি যুগান্তকারী চুক্তি ঘোষণা করেছে৷ এই নতুন মূলধন একটি কৌশলগত জোটের নিরিখে প্রকাশ পায় যা লাইমলাইটকে নতুন স্টোর খুলতে এবং দেশে তার ব্র্যান্ডের উপস্থিতি বাড়াতে সক্ষম করবে।

মাইলফলক সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে, কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা মিসেস পুজা শেঠ মাধবন বলেন, "আমাদের যাত্রার এই পরবর্তী ধাপে নতুন করে প্রাণশক্তি ও দৃঢ়সংকল্প নিয়ে যাত্রা শুরু করতে পেরে আমরা রোমাঞ্চিত৷ আমরা সারা দেশে গ্রাহকদের কাছ থেকে এলজিডি জুয়েলারির জন্য অসাধারণ সাড়া ও সমর্থন পেয়েছি৷ এটি আমাদের বিক্রিতেও প্রতিফলিত হয়েছে এবং দ্রুত গতিতে স্কেল করার জন্য আমাদের অগাধ আত্মবিশ্বাস দিয়েছে। এই সেক্টরে সরকারের অনুপ্রেরণা এবং ফোকাস সহ, বিনিয়োগ দেশে আমাদের উপস্থিতি বাড়ানো সহ আমাদের উচ্চাভিলাষী লক্ষ্য অর্জনের দিকে আরও উৎসাহিত করে। বিশ্বব্যাপী এই সেক্টরে সত্যিকার অর্থে ভারত এর নিজস্ব স্বদেশী সিভিডি হীরেকে 'লাইমলাইটে' নিয়ে এসেছে,”

এর আগে, কোম্পানি যৌথভাবে উৎপাদনের জন্য তথা লাইমলাইটকে এক ধরনের ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে একটি কৌশলগত চুক্তির অংশ হিসেবে এমারল্ড গ্রুপ (এশিয়ার বৃহত্তম জুয়েলারি প্রস্তুতকারক) থেকে একটি বিনিয়োগ নিশ্চিত করেছিল, ভারতে এবং বিশ্বব্যাপী এলজিডি স্টাডেড গহনা বিক্রি এবং বিতরণের মাধ্যমে। বর্তমান বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে এখন দেশে নিজস্ব ব্র্যান্ডের স্টোর সম্প্রসারণে দ্রুত এবং আরও শক্তিশালীভাবে এগিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। এটি এলজিডি সেক্টরে শিল্পের ক্রমবর্ধমান আস্থার পাশাপাশি লাইমলাইটের উদ্ভাবনী পদ্ধতিকে ভারত থেকে বিশ্বে টেকসই বিলাসিতা করার ক্ষেত্রে অগ্রগামী হিসেবে ব্র্যান্ডের অবস্থানকে উন্নীত করার দিকে আলোকপাত করে৷

২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠিত, লাইমলাইট ভারতের বৃহত্তম টেকসই বিলাসবহুল জুয়েলারী ব্র্যান্ড হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে যা ল্যাবে উৎপন্ন হীরে খচিত গহনা প্রস্তুত করে। গত দুই বছরে, ব্র্যান্ডটি দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ১০+ স্টোর (EBOs) ও মুম্বাই, দিল্লি, জয়পুর, বারাণসী, হায়দ্রাবাদ, ব্যাঙ্গালোর, চেন্নাই, কলকাতা ইত্যাদি সহ ২৫টিরও বেশি শহরে ছড়িয়ে থাকা ৪০+ শপ-ইন-শপ সহ এলজিডি জুয়েলারির জন্য দেশে সবচেয়ে বেশি পৌঁছেছে।

২০২৪ এর অর্থনৈতিক বর্ষে কোম্পানি ভারতীয় মুদ্রায় ৮০ কোটির বেশি বিক্রির রেকর্ড করেছে, যা গত বছরের তুলনায় ২৩০% বেশি। এর মধ্যে ব্র্যান্ডেড বিক্রি বছরে তিনগুণ বেড়েছে যার ফলে গ্রাহকদের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত হওয়ার এবং তার উপস্থিতি প্রসারিত করার জন্য কোম্পানির আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পেয়েছে।


Komentarze

Oceniono na 0 z 5 gwiazdek.
Nie ma jeszcze ocen

Oceń

Top Stories

bottom of page