top of page

বৃহস্পতিবার চন্দ্রযান-৩ থেকে আলাদা হয়ে গেল ল্যান্ডার 'বিক্রম'




১৭ অগাস্ট: পূর্ব নির্ধারিত হিসেবে অনুযায়ী বৃহস্পতিবার চন্দ্রযান-৩ থেকে ল্যান্ডার আলাদা হয়ে গেল। এই ল্যান্ডারের মধ্যেই রয়েছে রোভার 'প্রজ্ঞান'। চন্দ্রযান-৩-এর ল্যান্ডার ‘বিক্রম’ আগামী বুধবার চাঁদে নামবে। চাঁদের মাটিতে বিক্রম অবতরণ করলে এই প্রজ্ঞান বেরিয়ে আসবে। এরপর এই প্রজ্ঞান চাঁদের দক্ষিণ মেরু ঘুরে ঘুরে পরীক্ষা চালাবে। ইসরো জানিয়েছে, ল্যান্ডার ‘বিক্রম’ মূল মহাকাশযান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পর তার প্রাথমিক গন্তব্য হবে চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩০ কিলোমিটার উপরের কক্ষপথে। সেখান থেকে ধাপে ধাপে তাকে নামানো হবে চাঁদের মাটিতে।

চার বছর আগে ঠিক ওই পর্যায়ে এসে ব্যর্থ হয়েছিল ইসরোর ‘চন্দ্রযান-২’। শেষ পর্যায়ে চাঁদের মাটিতে নামতে গিয়েই হয়েছে বিপত্তি। এ বারও তাই সেই সর্বশেষ এবং সম্ভবত সবচেয়ে কঠিন পর্যায়টির দিকে তাকিয়ে আছে গোটা দেশ।


চাঁদের মাটির ৩০ কিমি উচ্চতা থেকে বিক্রমের নিচে নামতে সময় লাগবে মোট ২০ মিনিট। বিক্রম চাঁদের মাটি ছোঁয়ার পর খুলে যাবে দরজা। সেই দরজা দিয়ে বেরিয়ে আসবে প্রজ্ঞান। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং দাবি করেছেন, চাঁদ আদৌ মানুষের বসবাসযোগ্য কি না, তা খতিয়ে দেখবে চন্দ্রযান ৩-এর রোভার।

আগামী ২৩ অগস্ট চাঁদের মাটি স্পর্শ করবে ল্যান্ডার। এদিকে অনেকে মনে করছেন, নির্ধারিত সময়ের আগে চাঁদে নেমে পড়তে পারে ‘বিক্রম’। ‘বিক্রম’কে চাঁদে নামানোর জন্য ইসরোর হাতে এখনও ছ’দিন সময় আছে। তবে বিচ্ছেদের পর অবতরণ প্রক্রিয়ায় সাধারণত এত সময় লাগে না। কাজেই বিক্রম সময়ের আগেই চাঁদের মাটি স্পর্শ করে কি না সেদিকেও তাকিয়ে থাকবে সকলে।

ইসরোর তরফে জানানো হয়েছে, চাঁদের দক্ষিণ মেরুর কাছে অবতরণ করবে চন্দ্রযান ৩-র ল্যান্ডার এবং রোভার। ৭০ ডিগ্রি দ্রাঘিমাংশে অবতরণ করার কথা এই মহাকাশযানের। এই এলাকাটি চাঁদের দক্ষিণ মেরু থেকে ৩০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এখনও পর্যন্ত যে তিনটি দেশ চাঁদে পা রেখেছে, তাদের কেউই চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করতে পারেনি। ইসরো চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সফল ভাবে ল্যান্ডার নামাতে সক্ষম হলে ইতিহাস তৈরি করবে ভারত।


Commentaires

Noté 0 étoile sur 5.
Pas encore de note

Ajouter une note

Top Stories

bottom of page